বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ/ প্রিয় এজেন্ট নাম্বার

দেশের সবথেকে জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং হলো বিকাশ। বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ মূলত ১৮.৫০/- টাকা। বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ কম-বেশি হয়ে থাকে। কোন মাধ্যম ব্যবহার করে ক্যাশআউট করছেন, সেটির উপর নির্ভর করে। যেমন,

  • বিকাশ প্রিয় এজেন্ট
  • বিকাশ এটিএম বুথ
  • লোকাল এজেন্ট বিকাশ
  • বিকাশ ইউএসএসডি পদ্ধিতি
  • বিকাশ অ্যাপস ব্যবহার করে

এক-একটি মাধ্যমে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ এক-এক রকম। আপনি কোন মাধ্যম ব্যবহার করে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ করবেন? অবশ্যই যে মাধ্যমে খরচ সবথেকে কম হবে। সেই মাধ্যম ব্যবহার করবেন। তাই আপনার সুবিধার জন্য বিকাশের কোন মাধ্যমে ক্যাশআউট চার্জ কতো তা, নিম্নে আলোচনা করা হলো।

বিকাশ লাইভ চ্যাট করে সকল সমস্যার সমাধান করুন।

বিকাশ ক্যাশআউট চার্জ রেট ২০২৩:

বিকাশ ক্যাশআউট চার্জ রেট ২০২৩ সালে কতো আছে। এটা জানা প্রয়োজন। কারণ বিকাশ ক্যাশআউট খরচ কমাতে হলে ক্যাশআউট চার্জ রেট সর্ম্পকে বিস্তারিত ধারণা থাকতে হবে।

বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ রেট এক নজরে:

বিকাশ ক্যাশআউট মাধ্যমবিকাশ ক্যাশআউট রেট/ হাজারে কতো টাকা
বিকাশ প্রিয় এজেন্ট১৪.৯০/- টাকা
বিকাশ এটিএম বুথ১৪.৯০/- টাকা
লোকাল এজেন্ট বিকাশ১৮.৫০/- টাকা
বিকাশ ক্যাশআউট চার্জ
বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ

বিকাশ প্রিয় এজেন্ট থেকে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জরেট:

সময়ের সাথে-সাথে বিকাশ তাদের ক্যাশ আউট চার্জ বৃদ্ধি করেছে। ২০২৩ সালের শুরতে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ কিছুটা বৃদ্ধি করেছে। তবে বিকাশ, গ্রাহকদের কথা চিন্তা করে একটি বিশেষ অফার চালু করেছে। প্রিয় এজেন্ট অফার। বিকাশ প্রিয় এজেন্ট অফার কি?

অনলাইন ইনকাম বিডি পেমেন্ট বিকাশ

বিকাশ প্রিয় এজেন্ট হলো একজন বিকাশ গ্রাহক, যে এজেন্ট এর কাছে থেকে বেশি ক্যাশ আউট করেন, তার নাম্বার প্রিয় এজেন্ট হিসেবে সেট করতে পারবেন। তাহলে সেই বিকাশ গ্রাহক কিছু সবিধা পাবেন। যেমন, মাত্র ১৪.৯০/-টাকা প্রতি হাজারে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। এক হাজারে সেভ হবে=১৮.৫০/টাকা -১৪.৯০/টাকা = ৩.৬০/-টাকা। তাহলে ১০/- হাজারে সেভ হবে ১০*৩.৬০/-টাকা ৩৬/-টাকা।

আর ১০/- হাজার টাকা ক্যাশ আউট করতে খরচ হবে, ১০*১৪.৯০=১৪৯/-টাকা।

সুতরাং, বুঝতেই পারছেন, কম খরচে বিকাশ ক্যাশ আউট করতে চাইলে, প্রিয় এজেন্ট নাম্বার সেট করুন।

কিভাবে প্রিয় এজেন্ট নাম্বার সেট করবেন? প্রিয় এজেন্ট নাম্বার সেট নিজেই করতে পারবেন। প্রিয় এজেন্ট নাম্বার সেট করার জন্য বিকাশ অ্যাপস ব্যবহার করুন। অথবা *২৪৭# ডায়াল করেও বিকাশ প্রিয় নাম্বার সেট করতে পারবেন।

বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ২
বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ২

আপনার মোবাইল থেকে *২৪৭# ডায়াল করুন। তারপর আপনার সামনে এমন একটি ইন্টারফেস শো করবে। এখান থেকে, ক্যাশআউট সিলেক্ট করুন। ক্যাশ আউট সিলেক্ট করতে অপশন থেকে ৫ লিখে সেন্ড করুন। তারপর আপনার প্রিয় এজেন্ট নাম্বার সেট করতে অপশন থেকে ৪ লিখে সেন্ড করুন। এবার প্রিয় এজেন্ট এর মোবাইল নাম্বার দিন। তারপর প্রিয় এজেন্ট হিসেবে যাকে সেট করবেন তার নাম লিখুন। এবার আপনার বিকাশ একাউন্ট এর পিন নাম্বার টাইপ করুন। ব্যস আপনার কাজ শেষ।

বেস্ট বাংলাদেশী ইনকাম সাইট

কতোগুলো নাম্বার বিকাশ প্রিয় এজেন্ট হিসেবে সেট করা যায়:

আপনি বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর জন্য শুধু একটি নাম্বার প্রিয় এজেন্ট হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে প্রতি মাসে একবার করে পরিবর্তন করতে পারবেন। প্রতি মাসে আগের প্রিয় এজেন্ট নাম্বার পরিবর্তন করে নতুন নাম্বার সেট করতে পারবেন।

এটিএম বুথ থেকে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ রেট:

এবার আমরা দেখবো এটিএম বুথ থেকে বিকাশ ক্যাশআউট চার্জ কেমন হবে। প্রতি হাজারে কতো টাকা। এবং শতকরা কতো টাকা। এসব নিয়ে পরিস্কার ধারণা দিতে চেষ্টা করবো।

এটিএম বুথ থেকে বিকাশ ক্যাশ আউট করতে প্রতি হাজারে চার্জ হবে ১৪.৯০/- টাকা মাত্র। আর শতকরা চার্জ হবে ১.৪৯/- টাকা মাত্র। তবে মনে রাখবেন, এটিএম বুথ থেকে আপনার ইচ্ছা স্বাধীন যেকোনো পরিমাণ টাকা ক্যাশআউট করতে পারবেননা। এটিএম বুথ থেকে ক্যাশ আউট করতে হলে আপনাকে সর্বনিম্ন ৩-হাজার টাকা ক্যাশ আউট করতে হবে। যার জন্য আপনার চার্জ হবে ৪৪.৭০/- টাকা মাত্র।

এজেন্ট পয়েন্ট থেকে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ:

এবার আমরা আলোচনা করবো এজেন্ট পয়েন্ট থেকে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ। বিকাশের রেগুলার এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ আউট চার্জ কতো টাকা? সুবিধা-অসুবিধা কি কি?

আপনি কি জানেন, বিকাশ এজেন্ট পয়েন্ট-এ গিয়ে বিকাশ অ্যাপস বা *২৪৭# ডায়াল করে বিকাশ ক্যাশআউট করতে পারবেন। একটা সময় ছিল যখন, বিকাশ অ্যাপস ব্যবহার করে এজেন্ট থেকে ক্যাশআউট করলে খরচ কম হতো। সময় পরিবর্তন হয়েছে। এখন উভয় ক্ষেত্রে সমান ক্যাশআউট চার্জ প্রযোজ্য।

তবে বিকাশ এখনো একটি অফার চালু রেখেছে। যারা প্রথমবার বিকাশ অ্যাপস ইন্সটল করবে, তারা ইনসট্রান্ট ১৫০/-টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক বোনাস পাবেন। আপনারর যারা এখনো পর্যন্ত বিকাশ অ্যাপস ইনস্টল করেন নাই। তারা বিকাশ অ্যাপস ইনস্টল করতে পারেন।

বিকাশ এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ আউট চার্জ, প্রতি হাজারে ১৮.৫০/- টাকা মাত্র। এবং শতকরা ১.৮৫/- টাকা মাত্র। ১০/-হাজার টাকা বিকাশ এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ আউট করলে খরচ হবে ১৮৫/-টাকা মাত্র।

মোবাইল দিয়ে অনলাইন ইনকাম

বিকাশ সেন্ড মানি করতে চার্জ রেট:

দৈনন্দিন জীবনে টাকার গুরুত্ব অনেক। কারো ছেলে-মেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় লেখা-পড়া করছে। আবার কেউবা ঢাকায় চাকুরি করে বাড়িতে মা-বাবার জন্য টাকা পাঠাচ্ছেন। হাতের কাছে বিকাশ এজেন্ট পয়েন্ট আছে। চাইলেই একটি এজেন্টকে প্রিয় এজেন্ট হিসেবে সেট করে ক্যাশআউট করতে পারেন। আবার প্রিয় নাম্বার হিসেবেও সেট করতে পারেন। সময়ের প্রয়োজনে কখনো বা সেন্ড মানি করা লাগে। যদি জানা থাকে সেন্ড মানি করতে খরচ কেমন হয়? তাহলে আপনার জন্য সুবিধা হবে।

বিকাশ সেন্ড মানি করার জন্য আপনি একটি প্রিয় নাম্বার ব্যবহার করতে পারবেন। প্রিয় নাম্বারে সেন্ড একদম ফ্রি। তবে প্রিয় নাম্বার ছাড়া অন্য নাম্বারে কিন্ত চার্জ প্রযোজ্য হবে।

একমাসে আপনি মোট ৫-টি বিকাশ গ্রাহক একাউন্ট নাম্বার প্রিয় নাম্বার হিসেবে সেট করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন, কোনো বিকাশ এজেন্ট নাম্বার বা বিকাশ মার্সেন্ট নাম্বারকে প্রিয় নাম্বার হিসেবে সেট করতে পারবেননা।

বিকাশ প্রিয় নাম্বারে সেন্ড মানিতে শর্ত:

 বিকাশ প্রিয় নাম্বারে একজন গ্রাহক প্রতিমাসে ২৫-হাজার টাকা পর্যন্ত ফ্রিতেই সেন্ড মানি করতে পারবেন।

তবে কোনো বিকাশ গ্রাহক যখন ২৫-হাজার থেকে ৫০-টাকা পর্যন্ত সেন্ড করেন, তখন ৫-টাকা চার্জ প্রযোজ্য হবে। আর কোনো বিকাশ গ্রাহক যখন ৫০-হাজার টাকার বেশি সেন্ড মানি করেন। তখন ১০-টাকা চার্জ প্রযোজ্য হবে।

বিকাশ সেন্ড মানি প্রিয় নাম্বার ব্যতীত:

বিকাশ সেন্ড মানি করার জন্য প্রিয় নাম্বার ব্যতীত ১০০-টাকা পর্যন্ত কোনো খরচ হবেনা। অর্থাৎ ১০০ টাকা পর্যন্ত ফ্রিতেই সেন্ড মানি করতে পারবেন।

১০১-টাকা থেকে ২৫-হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হবে ৫-টাকা। আর ২৫-হাজার ১ টাকা থেকে তার বেশি যেকোনো পরিমাণ সেন্ড মানি করতে খরচ হবে ১০-টাকা।

আপনার নিয়মিত বিকাশ ব্যবহার করতে হয়। তাই বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ, বিকাশ ক্যাশ আউট অফার, বিকাশ প্রিয় এজেন্ট নাম্বার, বিকাশ প্রিয় নাম্বার, বিকাশ সেন্ডমানি চার্জ, বিকাশ সেন্ডমানি অফার, বিকাশ বোনাস ইত্যাদি বিষয়ে আপনার একটি স্বচ্ছ ধারণা থাকা উচিৎ। তাহলে কখন কোন অফার গ্রহণ করলে আপনার খরচ কম হবে তা জানতে পারবেন। 

উপসংহার:

উপরের আলোচনা থেকে বলতে পারিযে, আপনি সব সময় চোখ-কান খোলা রাখবেন। বিকাশের সকল অফার সর্ম্পকে ধারণা রাখবেন। তাহলে বিকাশের সেন্ড মানি, ক্যাশ আউট রেট সর্ম্পকে অবগত হবেন। বিকাশ লাইভ চ্যাট করতে পারেন। বিকাশ লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে কাস্টমার ম্যানেজারের সাথে কথা বলতে পারবেন। যেকোনো ছোট-খাট সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। আমাদের আজকের আর্টিকেলটি যদি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন, তাহলে বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ এবং বিকাশ সেন্ডমানি সর্ম্পকে আপনার একটি স্বচ্ছ ধারণা হয়েছে আশাকরি। এমন সব গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল পড়তে আমাদের সাইটের অন্যান্য পেজ ভিজিট করুন, ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top